সরিষাবাড়ীতে গম চাষে আগ্রহ হারাচ্ছে কৃষকরা খরচের পরিমাণ বেশি বাজার দাম কম

লিমন মিয়া, জামালপুর জেলা স্থায়ী সংবাদদাতা : পুষ্টিতে অনন্য, ভাতের পরই আমাদের দেশে যে খাদ্যটির চাহিদা বেশী সেটি হলো আটা ও ময়দা। আর এই আটা ও ময়দা আসে গম থেকে। তবে গম চাষে রয়েছে বিভিন্ন সমস্যা। গম চাষে খরচের পরিমাণ বেশি। আবার বাজারে কম দামে বিক্রি হয়।এ কারণে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মতো গম চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার কৃষকরাও। এতে গম চাষে প্রতি মৌসুমে অনিহা প্রকাশ করে কৃষকরা। সরজমিনে ঘুরে ও কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, মাটি আর বর্তমান আবহাওয়া উপযোগী না থাকায় এবং খরচের পরিমাণ বেশি হওয়াতে উপজেলার…

উৎপাদনের পাশাপাশি দরকার পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ- অতিরিক্ত সচিব, কৃষি মন্ত্রণালয়

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল): উৎপাদনের পাশাপাশি দরকার পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ। এতে চাষিরা লাভবান হবেন। কৃষিও হবে টিকসই। ৬ মার্চ বরিশালের খামারবাড়িতে কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, সরকারের অগ্রাধিকার কাজের সাথে সামঞ্জস্য রেখে প্রকল্প তৈরি করে তা বাস্তবায়ন করতে হবে।  তাছাড়া  জাতীয়  লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব নয়। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের (ডিএই) অতিরিক্ত পরিচালক মো. আফতাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ গোলাম মো. ইদ্রিস, আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা…

বরিশালের বাবুগঞ্জে বিনা সরিষা-৯’র ওপর কৃষক মাঠদিবস অনুষ্ঠিত

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল): বিনা সরিষা-৯’র ওপর কৃষক মাঠদিবস ১৪ মার্চ বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার ভবানীপুরে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি (ভার্চুয়ালে) ছিলেন আয়োজক প্রতিষ্ঠানের মহাপরিচালক ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিনার পরিচালক  ড. মো. আব্দুল মালেক, আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. রফি উদ্দিন এবং বিনার মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আজিজুল হক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিনা উপকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সোহেল রানা। প্রধান অতিথি কৃষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিনা সরিষা-৯ শূন্যচাষে আবাদ করা সম্ভব। আমনের শেষ পর্যায়…

এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে র্ফামকে বাচাঁতে ব্যাবহার করুন Bengal overseas Ltd এর Nobilis influenza H9N2 ভ্যাক্সিন

বাংলাদেশের আবহাওয়ায় ব্রীডার, লেয়ার, ব্রয়লার, সোনালী ও কক মুরগি  পালনকারীরা সবসময়ই একটা অজানা আতঙ্কে শঙ্কিত থাকেন, তা হলো এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস। বর্তমানে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার লো প্যাথজেনিক ভাইরাসটি নিয়েই সকলে অনেক আতঙ্কিত। এর ভয়াবহতা থেকে রক্ষা করার জন্যই এগিয়ে এসেছে Bengal overseas Ltd.; তারা বিশ্বখ্যাত MSD Animal Health এর Nobilis influenza H9N2 ভ্যাক্সিন বাজারজাত শুরু করেছে। Bengal overseas Ltd.-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব একেএম আলমগীর বলেন,  পোল্ট্রী শিল্প ও খামারীদের উক্ত LPAI(H9N2) এর প্রাদুর্ভাব থেকে সুরক্ষা দিতে এবং এরোগের বিরুদ্ধে উক্ত ভ‍্যাক্সিন (Nobilis Influenza H9N2) টির কার্যকারিতা প্রমাণিত হওয়ায়  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ…

Dr.Sharbari’s Pet Care. এর শুভ উদ্বোধন

শখ থেকেই অনেকে পোষেন প্রানি। সেই প্রানিটিই এক সময় হয়ে ওঠে নিত্যসময়ের সঙ্গী। তাই তার পরিপূর্ণ যত্ন  ও রোগশোকের বিষয়টিও খেয়াল রাখা উচিত পরিবারের সদস্যের মতোই। ঢাকায় বিশেষ করে গুলশান, বনানী, বারিধারা, উত্তরা, বসুন্ধরাসহ বিভিন্ন এলাকার শৌখিন মানুষ অনেক রকম প্রানি পোষেন। পোষা প্রানির স্বাস্থ্যসেবা, কুকুর বিড়ালের জলাতঙ্কসহ বিভিন্ন রোগের টিকা প্রদান ও উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ঢাকার বারিধারার ডিওএইচ এরিয়ায় ১লা মার্চ উদ্বোধন হয়ে গেল Dr.Sharbari’s Pet Care.  উক্ত দিনের প্রারম্ভ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  Dr.Sharbari barai (Founder & Chief, Dr.Sharbari’s Pet Care),  ডাঃ মাকসুদুল হাসান  (Chief consultant, LD…

বাংলাদেশের মৎস্য শিল্পে ভাসমান মাইক্রো ফিডের জন্য হিরিন-চায়নার মেশিনারিজ একটি আস্থার নাম।

হিরিন-চায়না বাংলাদেশে তাদের যাত্রাকাল থেকেই অত্যাধুনিক মেশিনারিজ দিয়ে নিরাপদ মৎস্য খাদ্যের নিশ্চায়তা দিয়ে ফিডমিল মালিকদের কাছে আস্থার প্রতিক হয়ে উঠেছে। হিরিন-চায়ন বাংলাদেশে তাদের যাত্রা শুরু করে মিসাম এগ্রো ফিড লিঃ এর মাধ্যমে। তারপর ২০১৭ সালে কেএনবি এগ্রো ইন্ডাস্টিজ লিঃ, কুষ্টিয়া হিরিন-চায়না এর মেশিনারিজ ব্যবহার করে বাংলাদেশে সর্বপ্রথাম ভাসমান মাইক্রো ফিড উৎপাদন করে এবং ২০১৮ সালে আগাতা ফিড মিলস লিঃ সুপার মাইক্রো ফিড সফল ভাবে উৎপাদন করতে সক্ষম হয়। যাহার পরিপেক্ষিতে ফিড মিল মালিকদের কাছে ভাসমান মাইক্রো ফিডের জন্য হিরিন-চায়নার মেশিনারিজ একটি আস্থার প্রতিক। যাহার ফল স্বরূপ ২০২০ সালে হিরিন-চায়না বাংলাদেশে…

পারবো মোরা

মানুষ যে মাটিতে পা ফসকে পড়ে যায় সে মাটিতে ভর করে উঠতে হয়। এজন্য তার  হাত পা ছেড়ে বসে থাকলে  জীবনেও উঠে দাঁড়াতে পারবো না। নিজের মনবল বাহুবল। সারা পৃথিবীতে আজ যেভাবে করোনা ভাইরাসের মহামারিতে মানুষের গোটা কর্মকান্ডকে থেমে দিয়েছে, এটাকে ভয় পেলে চলবেনা। ভয় পেতে হবে এটার মালিক মহান আল্লাহকে। তাঁর ওপর ভরসা রেখে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা জানি বর্তমানে এই প্রেক্ষপটে বেশী ক্ষতি হয়েছে যুব সমাজের। যেমন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে চাকুরী হারানো। স্বল্প পুঁজির ব্যবসায়ী যুবকেরা আজ দিশেহারা হয়ে গেছে। তবুও বলবো আমাদের ভেঙ্গে পরলে চলবে না। মহান…

সিআইজি সদস্যদের মাঝে প্রদর্শনীর উপকরণ বিতরণ

আজ ১৫/১০/২০২০ তারিখে এনএটিপি-২ এর আওতায় বকশিগঞ্জ উপজেলায় সিআইজি সদস্যদের মাঝে প্রদর্শনীর উপকরণ বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জামালপুর জেলার সুযোগ্য জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ এস এম উকিল উদ্দিন স্যার, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ বিপ্লব কুমার পাল, ভেটেরিনারি সার্জন ডাঃ মুহাম্মদ শিহাব উদ্দিন, প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডাঃ নাজমুন নাহার ( এনএটিপি-২) ও ডাঃ মাহবুব সোবহান (এলডিডিপি) এবং সীল সহ আরো অনেকে। এসময় সদস্যদের ৭ টি গাভীপালন, ৪ টি হৃষ্টপুষ্টকরণ ও ৬ টি মুরগীপালন প্রদর্শনী বিতরণ করা হয়।

ঝালকাঠিতে পরিবারিক পুষ্টি বাগান পরিদর্শনে কৃষি সচিব

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল): কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান ২ অক্টোবর ঝালকাঠির নলছিটিতে পরিবারিক পুষ্টি বাগান পরিদর্শন করেন। এ সময় কৃষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিকরণে পারিবারিক পুষ্টি বাগান রাখবে অনন্য ভূমিকা। এজন্য সঠিক পরিকল্পনার প্রয়োজন। প্রতি বেডে আলাদা শাকসবজি থাকবে। চাষাবাদ হবে মৌসুমভিত্তিক।  জাত নির্বাচন যেন উচ্চফলনশীল হয়। সে সাথে দরকার যতœ-আত্তি এবং রোগপোকা দমন। এ সব ব্যবস্থাপনা হতে হবে নিরাপদ উপায়ে। এগুলো অনুসরণ করলে বাগানে উৎপাদিত সবজি হবে আশানুরূপ। আর পাওয়া যাবে সারাবছর। এতে আপনাদের পারিবারিক চাহিদা পূরণ হবে। বাড়তি অংশ বিক্রি করে মিলবে নগদ অর্থ। তিনি…

ধানের উৎপাদন বাড়াতে দরকার জাতের পরিবর্তন-বরিশালে কৃষি সচিব

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল): ধানের উৎপাদন বাড়াতে দরকার জাতের পরিবর্তন। পুরোনোগুলো বাদ দিয়ে অধিক উৎপাদনশীল জাত ব্যবহার করতে হবে। তাহলেই আশানুরূপ ফলন পাওয়া সম্ভব। খাদ্য ও কৃষি সংস্থা করোনা পরবর্তী পৃথিবীতে খাদ্যাভাবের আশঙ্কা করেছে। তবে বাংলাদেশে খাবারের কোনো অভাব হবে না ইনশা-আল্লাহ। ইতোমধ্যে আউশে বাম্পার ফলন হয়েছে। বন্যায় আমনের কিছুটা ক্ষতি হলেও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও বোরোতে হাইব্রিড বীজের ব্যবহার বাড়িয়ে তা পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে। ৩ অক্টোবর বরিশাল নগরীর ব্রি সম্মেলনকক্ষে বরিশাল অঞ্চলে চলমান রোপা আমন আবাদ পরিস্থিতি এবং আগামী বোরো ও রবি মওসুমে করণীয় শীর্ষক দিনব্যাপি এক কর্মশালায় প্রধান…